fbpx
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

হলুদ কাগজ না সাদা কাগজ,কোনটি আমাদের ভবিষ্যৎ হওয়া উচিত?

হলুদ কাগজ নাকি সাদা কাগজ, কোনটা বেশি সুবিধার তা নিয়ে তর্ক,বিতর্ক অনেক।জেনে নেয়া যাক কোনটি আসলেই সুবিধার

পৃথিবী তে বর্তমানে যে সমস্যা  গুলো রয়েছে তার মধ্যে বর্তমান বিশ্বে বৃক্ষ- নিধন একটি  বড় সমস্যা।
মানুষ  তার বহুল চাহিদার জন্য অতিরিক্ত বৃক্ষনিধন করে থাকে। বৃক্ষনিধনের পেছনে  মানুষের অনেক  কারন রয়েছে তার মধ্যে  কাগজের ব্যবহার  একটি।আমরা সবাই জানি কাগজ তৈরিতে গাছের কাঠ ব্যবহার করা হয়। জরিপ অনুযায়ী  পৃথিবীতে প্রায় ১৪ শতাংশ বৃক্ষ নিধন করা হয় বিভিন্ন  ধরনের  কাগজ তৈরি করার জন্য। যেমন – লেখালেখি করার কাগজ,খবরের কাগজ, টিস্যু পেপার ইত্যাদি।

আমাদের দেশের মানুষের মধ্যে সাদা কাগজ ও হলুদ কাগজ ব্যবহার  এর মধ্যে একধরনের বৈষম্যতা করতে দেখা যায় যার কারনেই মূলত দিন দিন বৃক্ষনিধন বাড়ছে। সাদা কাগজ তৈরি  করার জন্য  বার বার গাছ কাটতে হয় এবং পুরনো  ব্যবহৃত সাদা কাগজ রিসাইকেল করে যে পুনঃব্যবহারযোগ্য  যে কাগজ পাওয়া যায় তা-ই  হচ্ছে হলুদ কাগজ বা অফ-হোয়াইট পেপার।

হলুদ কাগজ একবার ব্যবহার  এরপর পুনরায় অনেকবার তা রিসাইকেল বা পুনরায় ব্যবহারযোগ্য করে তোলা যায়। যা আমাদের পরিবেশের জন্য অতি কল্যাণকর।

নতুন সাদা কাগজ তৈরির চেয়ে পুনরায় ব্যবহারযোগ্য হলুদ কাগজ তৈরিতে ৭০ শতাংশ কম শক্তি এবং পানি লাগে। যার ফলে শক্তি, পানি একিসাথে পরিবেশের অনেক গাছ বেচে যাচ্ছে।

তবে আমাদের দেশের মানুষ  হলুদ কাগজ  বা অফ-হোয়াইট পেপার ব্যবহার এ অসন্তোষ প্রকাশ করে তারা মনে করে হলুদ কাগজ ব্যবহার  এ খারাপ দেখা যায়।কিন্তু আমরা যদি আমাদের দেশের মানুষের  মধ্যে  হলুদ কাগজ ব্যবহার এর উপকারিতা ছড়িয়ে  দিতে পারি তবে পরিবেশের অনেক গাছ বেচে  যাবে  এবং  ধিরে ধিরে  আমাদের পরিবেশ অক্সিজেন এ সয়ংসম্পূর্ণ হয়ে উঠবে।

আরো দেখুন

সমবিষয়ক আর্টিকেল

Leave a Reply

Your email address will not be published.